ঢাকা ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘ভিসা নীতি রক্ষার জন্য খাবার পাঠানো সরকারের নাটক’

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৬:৪৩:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুলাই ২০২৩ ৯৬ বার পড়া হয়েছে

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আটক নেতাদের কাছে খাবার ও ফুল পাঠানো সরকারের নাটক। এসব ভিসা নীতি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য, জনগণকে বিভ্রান্ত করার জন্য।

শনিবার (২৯ জুলাই) রাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি বলেন, ‘গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের কমিটমেন্ট টু হিজ পার্টি অ্যান্ড পলিটিক্স, গণতন্ত্র … এটা প্রমাণ করার প্রয়োজন রাখে না। তিনি তার সারা জীবনে, রাজনৈতিক জীবনে আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে রাজনীতি করেছেন, বড় হয়েছেন। আমান উল্লাহ আমানকে প্রমাণ করতে হবে না তিনি তার রাজনীতির প্রতি, দলের প্রতি, তার দেশের মানুষের প্রতি কোনো ঘাটতি আছে। কারণ তিনি নব্বইয়ে গণঅভ্যুত্থানে অন্যতম নায়ক এবং তিনি যে একজন জনগণের জনপ্রিয় নেতা তা প্রমাণ করেছেন আমান উল্লাহ আমান পরপর চারবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে। এই বিষয়গুলো মানুষ নেয় না ভাই।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘মানুষ জেনে গেছে, বুঝে গেছে যে, এগুলো তাদের রক্ষার জন্য এসব নাটক সাজিয়েছে। এর আগেও এসব ঘটনা ঘটিয়েছে। সুতরাং এই জিনিসগুলো নেতাকর্মী ও জনগণ গুরুত্বই দেয় না।’

ফখরুল বলেন, ‘এখন পাঠানো হচ্ছে ভিসা নীতি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য, জনগণকে বিভ্রান্ত করার জন্য।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন-দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা হাবিব উন নবী খান সোহেল, শামা ওবায়েদ, জহির উদ্দিন স্বপন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম, তাইফুল ইসলাম টিপু, শফিকুল ইসলাম মিল্টন ও আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

‘ভিসা নীতি রক্ষার জন্য খাবার পাঠানো সরকারের নাটক’

আপডেট সময় : ০৬:৪৩:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুলাই ২০২৩

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আটক নেতাদের কাছে খাবার ও ফুল পাঠানো সরকারের নাটক। এসব ভিসা নীতি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য, জনগণকে বিভ্রান্ত করার জন্য।

শনিবার (২৯ জুলাই) রাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি বলেন, ‘গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের কমিটমেন্ট টু হিজ পার্টি অ্যান্ড পলিটিক্স, গণতন্ত্র … এটা প্রমাণ করার প্রয়োজন রাখে না। তিনি তার সারা জীবনে, রাজনৈতিক জীবনে আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে রাজনীতি করেছেন, বড় হয়েছেন। আমান উল্লাহ আমানকে প্রমাণ করতে হবে না তিনি তার রাজনীতির প্রতি, দলের প্রতি, তার দেশের মানুষের প্রতি কোনো ঘাটতি আছে। কারণ তিনি নব্বইয়ে গণঅভ্যুত্থানে অন্যতম নায়ক এবং তিনি যে একজন জনগণের জনপ্রিয় নেতা তা প্রমাণ করেছেন আমান উল্লাহ আমান পরপর চারবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে। এই বিষয়গুলো মানুষ নেয় না ভাই।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘মানুষ জেনে গেছে, বুঝে গেছে যে, এগুলো তাদের রক্ষার জন্য এসব নাটক সাজিয়েছে। এর আগেও এসব ঘটনা ঘটিয়েছে। সুতরাং এই জিনিসগুলো নেতাকর্মী ও জনগণ গুরুত্বই দেয় না।’

ফখরুল বলেন, ‘এখন পাঠানো হচ্ছে ভিসা নীতি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য, জনগণকে বিভ্রান্ত করার জন্য।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন-দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা হাবিব উন নবী খান সোহেল, শামা ওবায়েদ, জহির উদ্দিন স্বপন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম, তাইফুল ইসলাম টিপু, শফিকুল ইসলাম মিল্টন ও আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন।