ঢাকা ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পিএসসির প্রশ্নফাঁস: গ্রেপ্তার ১৭ জনের ছবি ও নাম প্রকাশ

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ১১:৪৩:১৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪ ৭ বার পড়া হয়েছে

একযুগ ধরে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের (বিসিএস) পরীক্ষাসহ ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে সরকারি কর্মকমিশনের (বিপিএসসি) ঊর্ধ্বতন তিন কর্মকর্তাসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মো. আবু জাফর, উপ-পরিচালক, পিএসসি; নোমান সিদ্দিকী ; সৈয়দ আবেদ আলী, অবসরপ্রাপ্ত ড্রাইভার, পিএসসি ; খলিলুর রহমান, ডেসপাস রাইডার, পিএসসি ; সাজেদুল ইসলাম, অফিস সহায়ক, পিএসসি ; আবু সোলায়মান মো. সোহেল ; মো জাহাঙ্গীর আলম, উপ-পরিচালক, পিএসসি ; মো আলমগীর কবির, সহকারী পরিচালক, পিএসসি ; প্রিয়নাথ বায়, অডিটর; মো. জাহিদুল ইসলাম ; শাহাদাত হোসেন, নিরপত্তা প্রহরী, আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস, নারায়ণগঞ্জ ; মো মামুনুর রশীদ ; মো. নিয়ামুন হাসান, মেডিকেল টেকনিশিয়ান, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল; সাখাওয়াত হোসেন ; সায়েম হোসেন ; লিটন সরকার ও সৈয়দ সোহানুর রহমান সিয়াম।

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) নেয়া বিসিএসের ক্যাডার এবং নন-ক্যাডার পদের ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। পিএসসি ছয় কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংশ্লিষ্টতায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের খবরে বিক্ষুব্ধ পুরো শিক্ষার্থী সমাজ। এ ঘটনায় পিএসসির ২ উপপরিচালক, সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী ও পিএসসির অফিস সহায়ক সাজেদুল ইসলামসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি পুলিশ।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) বলছে, অভিযুক্ত সব কর্মকর্তা কর্মচারীদের আইনের আওতায় আনতে কাজ করছে সংস্থাটি। আজ সোমবার রাত ১০টা পর্যন্ত পিএসসির ৩ কর্মকর্তা, ভাইরাল হওয়া চালক আবেদ আলী, তার ছেলে সিয়ামসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- পিএসসির উপ-পরিচালক মো. আবু জাফর ও জাহাঙ্গীর আলম, সহকারী পরিচালক মো. আলমগীর কবির, অবসরপ্রাপ্ত গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী জীবন, তার ছেলে সৈয়দ সোহানুর রহমান সিয়াম, অফিস সহায়ক খলিলুর রহমান, নোমান সিদ্দিকী, সাজেদুল ইসলাম, আবু সোলায়মান মো. সোহেল, অডিটর প্রিয়নাথ রায়, মো. জাহিদুল ইসলাম, শাহাদাত হোসেন, মো. মামুনুর রশীদ, মো. নিয়ামুন হাসান, সাখাওয়াত হোসেন, সায়েম হোসেন ও লিটন সরকার।

সিআইডির সাইবার ইনভেস্টিগেশন এন্ড অপারেশন্স বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার (এসএসপি) মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমরা কাজ করছি। অভিযুক্ত বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে। তিনি আরো বলেন, এ চক্রের সঙ্গে যারই নাম আসবে তাকেই আইনের আওতায় আনা হবে।
সুত্রঃ রুপালী বাংলাদেশ

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

পিএসসির প্রশ্নফাঁস: গ্রেপ্তার ১৭ জনের ছবি ও নাম প্রকাশ

আপডেট সময় : ১১:৪৩:১৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪

একযুগ ধরে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের (বিসিএস) পরীক্ষাসহ ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে সরকারি কর্মকমিশনের (বিপিএসসি) ঊর্ধ্বতন তিন কর্মকর্তাসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- মো. আবু জাফর, উপ-পরিচালক, পিএসসি; নোমান সিদ্দিকী ; সৈয়দ আবেদ আলী, অবসরপ্রাপ্ত ড্রাইভার, পিএসসি ; খলিলুর রহমান, ডেসপাস রাইডার, পিএসসি ; সাজেদুল ইসলাম, অফিস সহায়ক, পিএসসি ; আবু সোলায়মান মো. সোহেল ; মো জাহাঙ্গীর আলম, উপ-পরিচালক, পিএসসি ; মো আলমগীর কবির, সহকারী পরিচালক, পিএসসি ; প্রিয়নাথ বায়, অডিটর; মো. জাহিদুল ইসলাম ; শাহাদাত হোসেন, নিরপত্তা প্রহরী, আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস, নারায়ণগঞ্জ ; মো মামুনুর রশীদ ; মো. নিয়ামুন হাসান, মেডিকেল টেকনিশিয়ান, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল; সাখাওয়াত হোসেন ; সায়েম হোসেন ; লিটন সরকার ও সৈয়দ সোহানুর রহমান সিয়াম।

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) নেয়া বিসিএসের ক্যাডার এবং নন-ক্যাডার পদের ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। পিএসসি ছয় কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংশ্লিষ্টতায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের খবরে বিক্ষুব্ধ পুরো শিক্ষার্থী সমাজ। এ ঘটনায় পিএসসির ২ উপপরিচালক, সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী ও পিএসসির অফিস সহায়ক সাজেদুল ইসলামসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি পুলিশ।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) বলছে, অভিযুক্ত সব কর্মকর্তা কর্মচারীদের আইনের আওতায় আনতে কাজ করছে সংস্থাটি। আজ সোমবার রাত ১০টা পর্যন্ত পিএসসির ৩ কর্মকর্তা, ভাইরাল হওয়া চালক আবেদ আলী, তার ছেলে সিয়ামসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- পিএসসির উপ-পরিচালক মো. আবু জাফর ও জাহাঙ্গীর আলম, সহকারী পরিচালক মো. আলমগীর কবির, অবসরপ্রাপ্ত গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী জীবন, তার ছেলে সৈয়দ সোহানুর রহমান সিয়াম, অফিস সহায়ক খলিলুর রহমান, নোমান সিদ্দিকী, সাজেদুল ইসলাম, আবু সোলায়মান মো. সোহেল, অডিটর প্রিয়নাথ রায়, মো. জাহিদুল ইসলাম, শাহাদাত হোসেন, মো. মামুনুর রশীদ, মো. নিয়ামুন হাসান, সাখাওয়াত হোসেন, সায়েম হোসেন ও লিটন সরকার।

সিআইডির সাইবার ইনভেস্টিগেশন এন্ড অপারেশন্স বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপার (এসএসপি) মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমরা কাজ করছি। অভিযুক্ত বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে। তিনি আরো বলেন, এ চক্রের সঙ্গে যারই নাম আসবে তাকেই আইনের আওতায় আনা হবে।
সুত্রঃ রুপালী বাংলাদেশ