ঢাকা ১১:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাটোরে ঠিকাদারের হাতে প্রকৌশলী লাঞ্ছিতের অভিযোগ

নাটোর প্রতিবেদকঃ
  • আপডেট সময় : ০৪:০৪:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩ ৭০ বার পড়া হয়েছে

বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি) এর নাটোর (ক্ষুদ্রসেচ) জোনের সহকারী প্রকৌশলী নাসিম আহমেদকে ঠিকাদার কতৃক পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে।জানা যায়, সুমি কনস্ট্রাকশন এর স্বত্তাধিকারী রওশন আলম মাহমুদ রাজু এবং তার অনুসারীরা মিলে রোববার দুপুর ১২ টার দিকে সহকারী প্রকৌশলীর কক্ষে প্রবেশ করে। এরপর রাজু পাবনা-নাটোর-সিরাজগঞ্জ জেলায় ভূ-উপরিস্থ পানির মাধ্যমে সেচ উন্নয়ন প্রকল্পের” আওতায় একটি স্কীমে চলমান ব্যারিড পাইপ লাইন নির্মাণ কাজের বিল দিতে বলেন এবং উচ্চবাচ্চ করতে থাকে।

কিন্তু কাজ শেষ না হওয়ায় বিল দিতে অস্বীকৃতি জানায় প্রকৌশলী। এতে ক্ষীপ্ত হয়ে ঠিকাদার রাজুর পকেটে থাকা টিপচাকু দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে তেরে আসে। ঠেকাইতে গিয়ে হাতে আঘাত পান প্রকৌশলী। সেসময় অন্য আসামী জাকির এবং সুজন এলোপাতাড়ি লাত্থি, কিল ঘুষি মারে।

প্রকৌশলী নাসিমের চিৎকার শুনে সহকর্মীরা উদ্ধার করে এবং নাটোর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

অপরদিকে এ অভিযোগ অস্বীকার করে ঠিকাদার রওশন আলম মাহমুদ রাজু বলেন, তিনি এক মাস আগেই কাজটি শেষ করে বিল উত্তোলনের জন্য কাগজপত্র দাখিল করি। কিন্তু সহকারী প্রকৌশলী নাসিম আহমেদবিল না দিয়ে টাল বাহানা শুরু করেন। আজ বিল চাইলে উভয়ের মধ্যে বাক বিতন্ডা হয়। উল্টো ইে অফিসের স্টাফরাই আমাকে লাঞ্চিত করে। তিনি এঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেন তিনি।

তবে নাটোর বিএডিসির নির্বাহী প্রকৌশলীর নম্বরে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি কোন ফোন রিসিভ করেননি। নাটোর থানার ওসি নাসিম আহমেদ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

নাটোরে ঠিকাদারের হাতে প্রকৌশলী লাঞ্ছিতের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০৪:০৪:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ মার্চ ২০২৩

বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি) এর নাটোর (ক্ষুদ্রসেচ) জোনের সহকারী প্রকৌশলী নাসিম আহমেদকে ঠিকাদার কতৃক পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে।জানা যায়, সুমি কনস্ট্রাকশন এর স্বত্তাধিকারী রওশন আলম মাহমুদ রাজু এবং তার অনুসারীরা মিলে রোববার দুপুর ১২ টার দিকে সহকারী প্রকৌশলীর কক্ষে প্রবেশ করে। এরপর রাজু পাবনা-নাটোর-সিরাজগঞ্জ জেলায় ভূ-উপরিস্থ পানির মাধ্যমে সেচ উন্নয়ন প্রকল্পের” আওতায় একটি স্কীমে চলমান ব্যারিড পাইপ লাইন নির্মাণ কাজের বিল দিতে বলেন এবং উচ্চবাচ্চ করতে থাকে।

কিন্তু কাজ শেষ না হওয়ায় বিল দিতে অস্বীকৃতি জানায় প্রকৌশলী। এতে ক্ষীপ্ত হয়ে ঠিকাদার রাজুর পকেটে থাকা টিপচাকু দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে তেরে আসে। ঠেকাইতে গিয়ে হাতে আঘাত পান প্রকৌশলী। সেসময় অন্য আসামী জাকির এবং সুজন এলোপাতাড়ি লাত্থি, কিল ঘুষি মারে।

প্রকৌশলী নাসিমের চিৎকার শুনে সহকর্মীরা উদ্ধার করে এবং নাটোর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

অপরদিকে এ অভিযোগ অস্বীকার করে ঠিকাদার রওশন আলম মাহমুদ রাজু বলেন, তিনি এক মাস আগেই কাজটি শেষ করে বিল উত্তোলনের জন্য কাগজপত্র দাখিল করি। কিন্তু সহকারী প্রকৌশলী নাসিম আহমেদবিল না দিয়ে টাল বাহানা শুরু করেন। আজ বিল চাইলে উভয়ের মধ্যে বাক বিতন্ডা হয়। উল্টো ইে অফিসের স্টাফরাই আমাকে লাঞ্চিত করে। তিনি এঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেন তিনি।

তবে নাটোর বিএডিসির নির্বাহী প্রকৌশলীর নম্বরে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি কোন ফোন রিসিভ করেননি। নাটোর থানার ওসি নাসিম আহমেদ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।