ঢাকা ০৩:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইদহে ৮২ লাখ টাকার রাস্তার মেয়াদ মাত্র ২ দিন!

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০৯:৩০:৪০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মার্চ ২০২৩ ৮৮ বার পড়া হয়েছে

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার চাপরাইল বাজার থেকে সিংগী বাজার পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার রাস্তাটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে প্রায় ৮২ লাখ টাকা। তবে নির্মাণের মাত্র দুদিনের মাথায় রাস্তার বিটুমিন (পিচ) উঠে যাচ্ছে। নিম্নমানের বিটুমিন, ইট ও সামগ্রী ব্যবহার করে রাস্তাটি নির্মাণ করায় এমন হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

জানা যায়, ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার চাপরাইল বাজার থেকে সিংগী বাজার পর্যন্ত প্রায় দেড় কিলোমিটার রাস্তাটি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গুরুত্বপূর্ণ পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প-৩ (আইআরআইডিপি) এর আওতায় তৈরি করা হয়। নির্মাণকাজে ব্যয় ধরা হয় ৮১ লাখ ৬৩ হাজার ৩৩৭ টাকা। রাস্তাটি নির্মাণের দায়িত্ব পান কাঞ্চননগর এলাকার ঠিকাদার নিশিত বসু। তবে ঠিকাদার নিশিত বসুর কাছ থেকে কাজটি নিয়ে নেন ঝিনাইদহের রাশেদ হোসেন নামের এক ব্যক্তি। সোমবার (২৭ মার্চ) বিকেলে কাজ শেষ করেছেন তিনি। কাজটির তদারকির দায়িত্বে ছিলেন উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবু তাহের।

সিংগী বাজারের স্থানীয় বাসিন্দা সুজয় সাহা বলেন, রাস্তায় পিচ দেওয়ার দুদিনের মাথায় সব উঠে যাচ্ছে। এমন রাস্তা করার চেয়ে না করায় ভালো।

একই বাজারের তপন কুমার ঘোষ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, সোমবার কাজ শেষ হয়েছে। মঙ্গলবার ভ্যানের চাকার সঙ্গে পিচ ঢালাই উঠে যাচ্ছে। এমন রাস্তা জীবনেও দেখিনি। দুইদিন পার হয়ে গেলেও পিচ ও খোয়া জমাট বাঁধেনি। রাস্তায় হাত দিলেই পিচ উঠে যাচ্ছে।

ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি রাশেদ হোসেন জানান, রাস্তার কাজ ইঞ্জিনিয়ার বুঝে নিয়েছেন। এখন আর কিছুই করার নেই। আর পিচ জমাট বাঁধতে সময় লাগে।

কালীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমি নিজে দাঁড়িয়ে থেকে কাজ করেছি। একটু সময় দিলে পিচ জমে যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ঝিনাইদহে ৮২ লাখ টাকার রাস্তার মেয়াদ মাত্র ২ দিন!

আপডেট সময় : ০৯:৩০:৪০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মার্চ ২০২৩

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার চাপরাইল বাজার থেকে সিংগী বাজার পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার রাস্তাটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে প্রায় ৮২ লাখ টাকা। তবে নির্মাণের মাত্র দুদিনের মাথায় রাস্তার বিটুমিন (পিচ) উঠে যাচ্ছে। নিম্নমানের বিটুমিন, ইট ও সামগ্রী ব্যবহার করে রাস্তাটি নির্মাণ করায় এমন হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

জানা যায়, ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার চাপরাইল বাজার থেকে সিংগী বাজার পর্যন্ত প্রায় দেড় কিলোমিটার রাস্তাটি অগ্রাধিকার ভিত্তিতে গুরুত্বপূর্ণ পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প-৩ (আইআরআইডিপি) এর আওতায় তৈরি করা হয়। নির্মাণকাজে ব্যয় ধরা হয় ৮১ লাখ ৬৩ হাজার ৩৩৭ টাকা। রাস্তাটি নির্মাণের দায়িত্ব পান কাঞ্চননগর এলাকার ঠিকাদার নিশিত বসু। তবে ঠিকাদার নিশিত বসুর কাছ থেকে কাজটি নিয়ে নেন ঝিনাইদহের রাশেদ হোসেন নামের এক ব্যক্তি। সোমবার (২৭ মার্চ) বিকেলে কাজ শেষ করেছেন তিনি। কাজটির তদারকির দায়িত্বে ছিলেন উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবু তাহের।

সিংগী বাজারের স্থানীয় বাসিন্দা সুজয় সাহা বলেন, রাস্তায় পিচ দেওয়ার দুদিনের মাথায় সব উঠে যাচ্ছে। এমন রাস্তা করার চেয়ে না করায় ভালো।

একই বাজারের তপন কুমার ঘোষ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, সোমবার কাজ শেষ হয়েছে। মঙ্গলবার ভ্যানের চাকার সঙ্গে পিচ ঢালাই উঠে যাচ্ছে। এমন রাস্তা জীবনেও দেখিনি। দুইদিন পার হয়ে গেলেও পিচ ও খোয়া জমাট বাঁধেনি। রাস্তায় হাত দিলেই পিচ উঠে যাচ্ছে।

ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি রাশেদ হোসেন জানান, রাস্তার কাজ ইঞ্জিনিয়ার বুঝে নিয়েছেন। এখন আর কিছুই করার নেই। আর পিচ জমাট বাঁধতে সময় লাগে।

কালীগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমি নিজে দাঁড়িয়ে থেকে কাজ করেছি। একটু সময় দিলে পিচ জমে যাবে।