ঢাকা ১২:৫১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কেরু চিনিকলে আখ মাড়াই বন্ধ, লোকসানের শঙ্কা

দেশের আওয়াজ ডেস্কঃ
  • আপডেট সময় : ০২:৪৮:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ১০১ বার পড়া হয়েছে

আখের অভাবে দর্শনা কেরু চিনিকলে মাড়াই আনুষ্ঠানিকভাবে বন্ধ করা হয়েছে। তবে বড় ধরনের কোনো যান্ত্রিক ত্রুটি হয়নি।
শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টায় ২০২২-২৩ মৌসুমের মাড়াই বন্ধ ঘোষণা করে কারখানা কর্তৃপক্ষ।

মাত্র ৪২ কার্যদিবসের মাথায় কারখানাটির আখ মাড়াই বন্ধ করা হলো। এরআগে গতবছরের ২৩ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছিল কেরু চিনিকলে আখ মাড়াই। এটিই কেরু কোম্পানির ইতিহাসে সর্বনিম্ন মাড়াইয়ের রেকর্ড।

চলতি ২০২২-২০২৩ সালে ৫৩ দিন ৬২ হাজার মেট্রিক টন আখ মাড়াই করে ৩ হাজার ৮৮৪ মেট্রিক টন চিনি উৎপাদন করার লক্ষ্যমাত্রা নিধার্রণ করা হয়। তাতে চিনি আহরণের হার ধরা হয় ৭ শতাংশ। এদিকে চলতি আখ মাড়াই মৌসুমে ৪ হাজার ২৩০ একর জমিতে আখ চাষ হয়েছে। এর মধ্যে মিলের কৃষি খামারগুলোর ১ হাজার ৫০ একর জমিতে আখ হয়।

তবে ২০২২-২০২৩ চলতি মাড়াই মৌসুমে ৫৩ দিনের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও মাত্র ৪২ দিনেই কেরু চিনিকলের মাড়াই মৌসুম শেষ হলো। এ ৪২ দিনে মাত্র ৪৬ হাজার ৬০ মেট্রিক টন আখ মাড়াই করা হয়েছে। এতে ২ হাজার ২১৯ হাজার মেট্রিক টন চিনি উৎপাদন হবে বলে জানায় চিনিকল কর্তৃপক্ষ। যার হার ৫ দশমিক ০৫। লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত না হওয়ায় অনেক টাকা লোকসান হবে প্রতিষ্ঠানটির। গত ২০২১-২২ সালে দর্শনা চিনি উৎপাদন মৌসুমে ৭০ কোটি টাকা লোকসান গুণতে হয় দর্শনা কেরু চিনি কারখানাকে।

এ বছরও চিনিতে এ প্রতিষ্ঠানটির ৫০-৫৫ কোটি টাকা লোকসান হবে বলে জানান কেরু’র মহা-ব্যবস্থাপক (অর্থ) মুহম্মদ সাইফুল ইসলাম।

এ বিষয়ে কেরু অ্যান্ড কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোশাররফ হোসেন বলেন, আখের অভাবে মাড়াই বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এতে এবারও লোকসানে পড়তে পারে দেশের চিনিখাত। এ বিষয়ে পরবর্তী সময়ে বিস্তারিত জানানো সম্ভব হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

কেরু চিনিকলে আখ মাড়াই বন্ধ, লোকসানের শঙ্কা

আপডেট সময় : ০২:৪৮:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

আখের অভাবে দর্শনা কেরু চিনিকলে মাড়াই আনুষ্ঠানিকভাবে বন্ধ করা হয়েছে। তবে বড় ধরনের কোনো যান্ত্রিক ত্রুটি হয়নি।
শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টায় ২০২২-২৩ মৌসুমের মাড়াই বন্ধ ঘোষণা করে কারখানা কর্তৃপক্ষ।

মাত্র ৪২ কার্যদিবসের মাথায় কারখানাটির আখ মাড়াই বন্ধ করা হলো। এরআগে গতবছরের ২৩ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছিল কেরু চিনিকলে আখ মাড়াই। এটিই কেরু কোম্পানির ইতিহাসে সর্বনিম্ন মাড়াইয়ের রেকর্ড।

চলতি ২০২২-২০২৩ সালে ৫৩ দিন ৬২ হাজার মেট্রিক টন আখ মাড়াই করে ৩ হাজার ৮৮৪ মেট্রিক টন চিনি উৎপাদন করার লক্ষ্যমাত্রা নিধার্রণ করা হয়। তাতে চিনি আহরণের হার ধরা হয় ৭ শতাংশ। এদিকে চলতি আখ মাড়াই মৌসুমে ৪ হাজার ২৩০ একর জমিতে আখ চাষ হয়েছে। এর মধ্যে মিলের কৃষি খামারগুলোর ১ হাজার ৫০ একর জমিতে আখ হয়।

তবে ২০২২-২০২৩ চলতি মাড়াই মৌসুমে ৫৩ দিনের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও মাত্র ৪২ দিনেই কেরু চিনিকলের মাড়াই মৌসুম শেষ হলো। এ ৪২ দিনে মাত্র ৪৬ হাজার ৬০ মেট্রিক টন আখ মাড়াই করা হয়েছে। এতে ২ হাজার ২১৯ হাজার মেট্রিক টন চিনি উৎপাদন হবে বলে জানায় চিনিকল কর্তৃপক্ষ। যার হার ৫ দশমিক ০৫। লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত না হওয়ায় অনেক টাকা লোকসান হবে প্রতিষ্ঠানটির। গত ২০২১-২২ সালে দর্শনা চিনি উৎপাদন মৌসুমে ৭০ কোটি টাকা লোকসান গুণতে হয় দর্শনা কেরু চিনি কারখানাকে।

এ বছরও চিনিতে এ প্রতিষ্ঠানটির ৫০-৫৫ কোটি টাকা লোকসান হবে বলে জানান কেরু’র মহা-ব্যবস্থাপক (অর্থ) মুহম্মদ সাইফুল ইসলাম।

এ বিষয়ে কেরু অ্যান্ড কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোশাররফ হোসেন বলেন, আখের অভাবে মাড়াই বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এতে এবারও লোকসানে পড়তে পারে দেশের চিনিখাত। এ বিষয়ে পরবর্তী সময়ে বিস্তারিত জানানো সম্ভব হবে।