ঢাকা ০৯:৫৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অণুর নৌকার যাত্রী হওয়ার দাবীতে গৌরীপুরে শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশ

আরিফ রববানী , ময়মনসিংহ ||
  • আপডেট সময় : ১১:০৯:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুলাই ২০২৩ ৭৫২ বার পড়া হয়েছে

ময়মনসিংহের গৌরীপুর-৩ সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী,জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও ত্যাগী নির্যাতিত সাবেক ছাত্রনেতা শরীফ হাসান অনুর সমর্থনে শান্তি,উন্নয়ন ও বিশাল আঞ্চলিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (২৮জুলাই) বিকালে স্থানীয় গাজীপুর বাসষ্টেন্ড এলাকায় আওয়ামীগ নেতা অনুর পক্ষে মনোনয়নের দাবী নিয়ে উপজেলার ডৌহাখোলা,
ভাংনামারী ও রামগোপালপুর এই তিন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনসহ সর্বস্তরের জনতার উদ্যোগে এই শান্তি,উন্নয়ন আঞ্চলিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে শান্তি এবং উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার বিজয়কে অক্ষুন্ন রাখতে নেতৃবৃন্দ অঙ্গীকারাবদ্ধ হয় জননেত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণের লক্ষ্যে বক্তব্য উপস্থাপন করেন নেতৃবৃন্দ আরও বলেন ভাংনামারী ডৌহাখলা এবং রামগোপালপুর এই তিনটি ইউনিয়নকে গৌরিপুর উপজেলার পশ্চিমবঙ্গল বলে সকলেই জানে। শরীফ হাসান অনুব্যাতিত এই পশ্চিম অঞ্চলে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির আর কোন প্রার্থী না থাকায় মোঃ শরীহ হাসান অনু অত্যন্ত সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন আঞ্চলিকতার দিক থেকে শরিফ হাসান অণুকে দলীয় মনোনয়ন দিলে অনুর পক্ষে আঞ্চলিক গণজোয়ার সৃষ্টি হবে। মনোনয়ন পেলে খুব সহজেই নৌকা মার্কার বিজয় সুনিশ্চিত হবে।

এতে তিন ইউনিয়নের হাজার-হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। সমাবেশ শেষে শরীফ হাসান অনুর সমর্থনে একটি বিশাল মিছিল গাজীপুর বাজারের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এর আগে বিকাল ৩টা থেকে তিন ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা থেকে খন্ড খণ্ড মিছিল মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে সমবেত হয় নেতাকর্মীরা। পরে উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক ছাত্রনেতা শরীফ হাসান অনু তার বক্তব্যে এই তিন ইউনিয়নের স্বাধীনতার পক্ষের সর্ব স্তরের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন-সকলে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে গেলে জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণের লক্ষ্যে দেশ এগিয়ে যাবে। নেত্রী যাকে মনোনয়ন দিবে সকলে মিলে তার পক্ষে ঐক্যবদ্ধভাবে ঝাঁপিয়ে পড়লে বিজয় সুনিশ্চিত হবে।

এ সময় তিনি বলেন, বিএনপির যেকোনো ধরনের অপকৌশল রুখে দিতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকার মাধ্যমে শেখ হাসিনার যে কোন নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করার মধ্য দিয়ে আগামী দিনের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখারও আহবান জানান তিনি।
শরীফ হাসান অণু বলেন আমি দলের দুঃসময়ে রাজপথে থেকেছি। এজন্য আমাকে ক্রসফায়ারের নির্দেশ দিয়েছিলো তৎকালীন বিএনপি-জামাত জোট সরকার, তবুও আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে পিছ পা হইনি।গত সাংসদ নির্বাচনেও মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত হয়ে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছি। একদিনের জন্যেও মাঠ ছেড়ে যায়নি বলেও জানান তিনি।

ডৌহাখলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজিমুদ্দিন এর সভাপতিত্বে ও গৌরীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাওতি ইকরামুল হোসেন খান মামুনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন-
বক্তব্য প্রদান করেন গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ডাক্তার হেলাল উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য লাকি খন্দকার, ডৌহাখলা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল সাত্তার, ডৌহাখলা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন, ডৌহাখলা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান কাইয়ুম, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মোসলেম উদ্দিন, ফারুক আহমেদ ফকির, রতন সরকার, তারা মিয়া, আবুল বসার আকন্দ, শাজাহান মেম্বার, ডাক্তার মাহফুজুর রহমান, ডাক্তার রবি, জামির উদ্দিন, ভাংনামারী ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সরকার, ভাংনামারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমেদ, আওয়ামী লীগ নেতা মুস্তাফিজুর রানা, মুস্তাফিজুর রানা , জাকির, আজাহার, শিমুল,রামগোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা মামুন, রামগোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মামুন, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাশেম, যুবলীগ নেতা আলাল,উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নুর আলী, সাবেক সভাপতি হীরা, আওয়ামী লীগ নেতা বাচ্চু, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা এনামুল হাবিব, শাহ আলম, টফি, রিজভী , জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাহার প্রমুখ।

আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ আলী ডিলার ও ডৌহাখোলা ইউপি সদস্য আবুল কালাম এর যৌথ ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত সমাবেশে অন্যান্যদের মাঝে ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগের ৩৩নং ওয়ার্ডের যুগ্ম আহবায়ক হেলাল আহমেদ,আহসান হাবীব,সদস্য আজমল হোসেন মীর,আল মামুন বিপ্লব,রাজু আহমেদ বাচ্চুসহ গৌরীপুর উপজেলা ও বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

অণুর নৌকার যাত্রী হওয়ার দাবীতে গৌরীপুরে শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশ

আপডেট সময় : ১১:০৯:১২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৯ জুলাই ২০২৩

ময়মনসিংহের গৌরীপুর-৩ সংসদীয় আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী,জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও ত্যাগী নির্যাতিত সাবেক ছাত্রনেতা শরীফ হাসান অনুর সমর্থনে শান্তি,উন্নয়ন ও বিশাল আঞ্চলিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (২৮জুলাই) বিকালে স্থানীয় গাজীপুর বাসষ্টেন্ড এলাকায় আওয়ামীগ নেতা অনুর পক্ষে মনোনয়নের দাবী নিয়ে উপজেলার ডৌহাখোলা,
ভাংনামারী ও রামগোপালপুর এই তিন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনসহ সর্বস্তরের জনতার উদ্যোগে এই শান্তি,উন্নয়ন আঞ্চলিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে শান্তি এবং উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার বিজয়কে অক্ষুন্ন রাখতে নেতৃবৃন্দ অঙ্গীকারাবদ্ধ হয় জননেত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণের লক্ষ্যে বক্তব্য উপস্থাপন করেন নেতৃবৃন্দ আরও বলেন ভাংনামারী ডৌহাখলা এবং রামগোপালপুর এই তিনটি ইউনিয়নকে গৌরিপুর উপজেলার পশ্চিমবঙ্গল বলে সকলেই জানে। শরীফ হাসান অনুব্যাতিত এই পশ্চিম অঞ্চলে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির আর কোন প্রার্থী না থাকায় মোঃ শরীহ হাসান অনু অত্যন্ত সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন আঞ্চলিকতার দিক থেকে শরিফ হাসান অণুকে দলীয় মনোনয়ন দিলে অনুর পক্ষে আঞ্চলিক গণজোয়ার সৃষ্টি হবে। মনোনয়ন পেলে খুব সহজেই নৌকা মার্কার বিজয় সুনিশ্চিত হবে।

এতে তিন ইউনিয়নের হাজার-হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। সমাবেশ শেষে শরীফ হাসান অনুর সমর্থনে একটি বিশাল মিছিল গাজীপুর বাজারের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এর আগে বিকাল ৩টা থেকে তিন ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা থেকে খন্ড খণ্ড মিছিল মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে সমবেত হয় নেতাকর্মীরা। পরে উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক ছাত্রনেতা শরীফ হাসান অনু তার বক্তব্যে এই তিন ইউনিয়নের স্বাধীনতার পক্ষের সর্ব স্তরের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন-সকলে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে গেলে জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণের লক্ষ্যে দেশ এগিয়ে যাবে। নেত্রী যাকে মনোনয়ন দিবে সকলে মিলে তার পক্ষে ঐক্যবদ্ধভাবে ঝাঁপিয়ে পড়লে বিজয় সুনিশ্চিত হবে।

এ সময় তিনি বলেন, বিএনপির যেকোনো ধরনের অপকৌশল রুখে দিতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকার মাধ্যমে শেখ হাসিনার যে কোন নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করার মধ্য দিয়ে আগামী দিনের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে অব্যাহত রাখারও আহবান জানান তিনি।
শরীফ হাসান অণু বলেন আমি দলের দুঃসময়ে রাজপথে থেকেছি। এজন্য আমাকে ক্রসফায়ারের নির্দেশ দিয়েছিলো তৎকালীন বিএনপি-জামাত জোট সরকার, তবুও আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ থেকে পিছ পা হইনি।গত সাংসদ নির্বাচনেও মনোনয়ন থেকে বঞ্চিত হয়ে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছি। একদিনের জন্যেও মাঠ ছেড়ে যায়নি বলেও জানান তিনি।

ডৌহাখলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজিমুদ্দিন এর সভাপতিত্বে ও গৌরীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাওতি ইকরামুল হোসেন খান মামুনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন-
বক্তব্য প্রদান করেন গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ডাক্তার হেলাল উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য লাকি খন্দকার, ডৌহাখলা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল সাত্তার, ডৌহাখলা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন, ডৌহাখলা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান কাইয়ুম, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মোসলেম উদ্দিন, ফারুক আহমেদ ফকির, রতন সরকার, তারা মিয়া, আবুল বসার আকন্দ, শাজাহান মেম্বার, ডাক্তার মাহফুজুর রহমান, ডাক্তার রবি, জামির উদ্দিন, ভাংনামারী ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম সরকার, ভাংনামারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমেদ, আওয়ামী লীগ নেতা মুস্তাফিজুর রানা, মুস্তাফিজুর রানা , জাকির, আজাহার, শিমুল,রামগোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা মামুন, রামগোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মামুন, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাশেম, যুবলীগ নেতা আলাল,উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নুর আলী, সাবেক সভাপতি হীরা, আওয়ামী লীগ নেতা বাচ্চু, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা এনামুল হাবিব, শাহ আলম, টফি, রিজভী , জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাহার প্রমুখ।

আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ আলী ডিলার ও ডৌহাখোলা ইউপি সদস্য আবুল কালাম এর যৌথ ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত সমাবেশে অন্যান্যদের মাঝে ময়মনসিংহ মহানগর আওয়ামী লীগের ৩৩নং ওয়ার্ডের যুগ্ম আহবায়ক হেলাল আহমেদ,আহসান হাবীব,সদস্য আজমল হোসেন মীর,আল মামুন বিপ্লব,রাজু আহমেদ বাচ্চুসহ গৌরীপুর উপজেলা ও বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।